1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. stsauto2@gmail.com : শেষ আলো : শেষ আলো
শিরোনাম :
 বেরোবি-র  উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহর বিরুদ্ধে দুর্নীতির ৪৬ অভিযোগ সিলেটে যুক্তরাজ্য থেকে আসা ২৮ জন যাত্রীর শরীরে করোনা পজিটিভ বিশ্বকাপ সুপার লিগে শুরুতে জিতে ১০ পয়েন্ট পেলো বাংলাদেশ আলোচিত সাবেক এমপি আউয়াল ও তাঁর স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ পূর্বপুরুষের দেশ কলকাতা এসে অভিনেত্রী বনিতা সান্ধু জানলেন, তিনি কোভিড আক্রান্ত নতুন ইতিহাসঃ জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন, সম্পাদক ইলিয়াস খান ফাইজার ভ্যাকসিন গ্রহণের ১ সপ্তাহ পর নার্স করোনা পজিটিভ সরকার এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের জন্য শীঘ্রই অধ্যাদেশ জারি করবে বাংলাদেশ ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করছে, যুক্তরাজ্য থেকে আসা যাত্রীদের প্যানডেমিক প্যাকেজে ট্রাম্পের সই

বিশ্বের সেরা কয়েকটি বার্তা সংস্থা তাদের বাণিজ্যিক সেবা ও কার্যাবলী

  • Update Time : Saturday, October 31, 2020
  • 57 Time View

৩১ অক্টোবর, ২০২০(শেষআলো ডটকম): দেশি-বিদেশী যে কোন পত্রপত্রিকা আমরা পড়ি কিংবা টেলিভিশনের ওপর চোখ রাখি, সেখানে অনেক খবরের সংবাদ-সূত্র হিসেবে এক বা একাধিক বার্তা সংস্থার অবদান থাকেই। ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার পাশাপাশি বর্তমানে অনলাইন নিউজ পোর্টালেরও একটা বড় সংবাদসূত্র বার্তা সংস্থা।

দেশ-বিদেশে কর্মরত ও বিভিন্ন সংবাদপত্রের সাথে জড়িত বিভিন্ন স্তরের সাংবাদিকদের সংগঠনই হলো সংবাদ সংস্থা বা বার্তা সংস্থা। । সংবাদকর্মীরা বিভিন্ন বিষয় ও ঘটনা নিয়ে তাদের সৃষ্ট সংবাদ, প্রতিবেদন, প্রবন্ধ-নিবন্ধ, আলোকচিত্র ইত্যাদি ঐ সংগঠনে প্রেরণ করেন। সংবাদ সংস্থাগুলো দেশে-বিদেশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা বিভিন্ন সংবাদপত্র, সাময়িকী, বেতার, টেলিভিশন ইত্যাদি গণমাধ্যমে নির্দিষ্ট শর্তাবলীর মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সংবাদ নির্দিষ্ট দিন কিংবা সময়ে প্রেরণ করে।বিশ্বে বহু সরকারি-বেসরকারি বার্তা সংস্থা রয়েছে। এর মধ্যে কিছু কিছু বার্তা সংস্থা বিশ্বব্যাপী বিপুলভাবে সমাদৃত। চলুন জেনে নিই বিশ্বের সেরা কয়েকটি বার্তা সংস্থা সম্পর্কে।

 

এপি বা এসোসিয়েটেড প্রেস: একটি আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা। এটি পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ একটি আমেরিকান সংবাদ সংস্থা। এটি আমেরিকার কতগুলো সংবাদ পত্রিকা ও সম্প্রচার কেন্দ্রের মালিকানাধিন একটি সমবায় প্রতিষ্ঠান। আমেরিকার বাইরের অনেক সংবাদ পত্রিকা ও টেলিভিশন সম্প্রচার কর্তৃপক্ষ নিদৃষ্ট পরিমান অর্থের বিনিময়ে এপি র সংগৃহিত তথ্য ব্যবহার করে । এর প্রধান সদর দপ্তর নিউইয়র্কে অবস্থিত। ২০০৫ সালের এক তথ্যমতে ১৭০০ সংবাদপত্র ও ৫০০০ টেলিভিশন ও বেতার সংস্থা এপির সংগৃহিত তথ্য ব্যবহার করেছে। এপির ফটো লাইব্রেরিতে ১ কোটির ও বেশি ছবি আছে। বর্তমানে এপির ২৪২ টি ব্যুরোর মাধ্যমে ১২১টি দেশে সেবা দিচ্ছে।

 

এএফপি (বার্তা সংস্থা): পৃথিবীর প্রাচীনতম সংবাদ বা বার্তা সংস্থা হিসেবে ইতিহাসে ঠাঁই করে নিয়েছে ফ্রান্স তথা বিশ্বের অন্যতম খ্যাতনামা সংবাদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান এজেন্সী ফ্রান্স-প্রেস। তবে প্রতিষ্ঠানটি সর্বসমক্ষে এএফপি হিসেবেই সর্বাধিক পরিচিত হয়ে আছে। এটি ১৮৩৫ সালে প্যারিসের বিখ্যাত অনুবাদক ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি চার্লস-লুইস হাভাসের গঠিত এজেন্সী হাভাসের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়। তিনি এএফপি’র প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে পরিচিত। এজেন্সী হাভাস হচ্ছে ফ্রান্সের ২য় বৃহত্তম বিজ্ঞাপনী প্রচারণা সংস্থা। চার্লস-লুইস হাভাসের অধীনে কর্মরত ছিলেন পল জুলিয়াস রয়টার এবং বার্নহার্ড ওল্ফ। পরবর্তীকালে তাঁরা লন্ডন এবং বার্লিনে নতুন একটি সংবাদ সংস্থা গড়েছিলেন।

১৮৫৩ সালে ইটালীর তুরিনে গুগলাইলমো স্টিফানী এজেনজিয়া স্টিফানী নামে সংবাদ সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন। ‘এজেনজিয়া স্টিফানী’ বার্তা সংস্থাটি পরবর্তীকালে ইটালী রাজতন্ত্রের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ সংস্থা হিসেবে পরিচিতি পেয়েছিল। এটি ম্যানলিও মোরগ্যাগনি’র সাথে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক সৃষ্টি করেছিল।

ব্যয়ভার হ্রাস এবং ব্যবসায়ে অত্যন্ত লাভজনক বিজ্ঞাপন প্রচারের স্বার্থে ১৮৫২ সালে উত্তরাধিকারী হিসেবে হাভাসের পুত্র রয়টার এবং ওল্ফের সাথে চুক্তিতে আবদ্ধ হন এএফপি’র কর্ণধার। এরফলে তারা পারস্পরিকভাবে ইউরোপের বিভিন্ন অংশে সংবাদ এলাকা নির্ধারণ করেন।

সংস্থাটির পাঁচটি আঞ্চলিক অফিস রয়েছে হংকং, নিকোশিয়া, ওয়াশিংটন ডিসি, প্যারিস ও লাতিন আমেরিকায়। পৃথিবীর ১৫১টি দেশের ২০১ টি স্থানে এই সংবাদ সংস্থার অফিস রয়েছে। সংস্থাটি ছয়টি ভাষায় তথ্য সরবরাহ করে থাকে। ইংরেজী, ফ্রেঞ্চ, জার্মান, স্পেনিশ, পর্তুগীজ, আরবি ভাষায় ছবি, সংবাদ, ভিডিওসহ বিভিন্ন তথ্য সরবরাহ করে থাকেন একটি ভিন্ন জাতীয়তার প্রায় এক হাজার ৭শ সাংবাদিক। ১৫ সদস্যদের বোর্ড দ্বারাই এটি পরিচালিত হয়।

 

রয়টার্স (Reuters): লন্ডন ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা। এটি ১৮৫১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে এর সদর দপ্তর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইর্য়ক শহরে অবস্থিত। এটি থমসন রয়টার্সের একটি বিভাগীয় প্রতিষ্ঠান। সারা বিশ্বে ২০০টি স্থানে এর দপ্তর রয়েছে। ২০০৮ সাল পর্যন্ত রয়টার্স সংবাদ সংস্থা স্বাধীন কোম্পানি রয়টারস গ্রুপ পিএলসির অংশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং পুঁজি বাজারের তথ্য প্রদান করে। ২০০৮ সালে থমসন করপোরেশন রয়টার্স গ্রুপকে কিনে নেওয়ার পর রয়টার্স সংবাদ সংস্থা থমসন রয়টার্সের অংশ হয় এবং মিডিয়া বিভাগ সৃষ্টি করে। রয়টার্স ইংরেজি, ফরাসি, জার্মান, ইতালীয়, স্পেনীয়, পর্তুগিজ, রুশ, উর্দু, আরবি, জাপানি, কোরীয় ও চীনা ভাষায় সংবাদ পরিবেশন করে

 

সিপি :দ্য কানাডিয়ান প্রেস, সংক্ষেপে সিপি। এটি লা প্রেস কানাডিয়ান নামেও খ্যাত। কানাডার এই জাতীয় বার্তা সংস্থার সদর দপ্তর টরন্টোতে। ১৯১৭ সালে অলাভজনক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে এর আত্মপ্রকাশ ঘটে। প্রায় ২৫০ জন সংবাদকর্মী নিয়ে কানাডিয়ান প্রেসের ব্যুরো কার্যক্রম বিস্তৃত। ১৯৯৬ সালে কানাডিয়ান প্রেস ব্রেকিং নিউজ সার্ভিস চালু করে। কানাডিয়ান প্রেস একই সঙ্গে ফটো-সাংবাদিকদের মাধ্যমে বৃহত্তম আর্কাইভ গড়ে তুলেছে। কানাডায় এটিই ছিল প্রথম অনলাইন আর্কাইভ। বর্তমানে এতে ছবির সংখ্যা প্রায় দুই কোটি। প্রতিদিন এই আর্কাইভে যুক্ত হয় ১০০ ডিজিটাল সংবাদচিত্র যা সংবাদপত্র, টেলিভিশন, বই এবং ম্যাগাজিনে ব্যবহৃত।

 

সিনহুয়া: সংবাদ সংস্থা হচ্ছে চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা । তথ্য সংগ্রহের জন্য এবং প্রেস কনফারেন্স এর জন্য এটি চীনের বৃহত্তম সংস্থা। এটি চীনের সবচেয়ে বড় সংবাদ সংস্থা। সিনহুয়া এর প্রধান কার্যালয় কমপ্লেক্স, “পেন্সিল বিল্ডিং”, ৫৭ নং Xuanwumenxi স্ট্রীট, বেইজিং এ। সিনহুয়া তে ১০ হাজার এর বেশি কর্মী কাজ করে। সিনহুয়া বার্তা সংস্থা ১৯৩১ সালে রেড চীনা সংবাদ সংস্থা হিসাবে কর্যক্রম শুরু করে এবং ১৯৩৭ সালে এর বর্তমান নাম (সিনহুয়া সংবাদ সংস্থা) রাখা হয়। প্যাসিফিক যুদ্ধের সময় সংস্থাটি তাদের প্রথম বিদেশী শাখা প্রতিষ্ঠা করে এবং সম্প্রচার সক্ষমতা উন্নত করে। ১৯৪৪ সাল থেকে সংস্থাটি তাদের প্রথম বিদেশী ভাষায় ইংরেজিতে সংবাদ পরিচালনা শুরু করে। নিউজ সার্ভিস চালিত চীনের বৃহত্তম সংবাদ সংস্থাটির মূল সদর দপ্তর বেইজিং এ অবস্থিত।১৯৪৭ সালে সিনহুয়া সংবাদ সংস্থা লন্ডনে প্রথম বিদেশী শাখার কার্যালয় স্থাপন করে।

 

পিটিআই: ভারত তথা দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম বার্তা সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া সংক্ষেপে পিটিআই। এটি সমবায়ভিত্তিক একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। এর সদর দপ্তর দিল্লিতে। সাড়ে চার শর বেশি ভারতীয় সংবাদপত্রের সমন্বয়ে এই সংস্থাটি গঠিত। প্রায় দুই হাজার কর্মচারী ও দেশব্যাপী ১৫০টি অফিস নিয়ে এর কার্যক্রম বিস্তৃত। ১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতা অর্জনের পর এর আত্মপ্রকাশ ঘটে এবং পরবর্তীতে এটি রয়টার্সের মতো বড় বার্তা সংস্থায় রূপ নেয়। হিন্দি ও ইংরেজি ভাষায় বার্তা সংস্থাটি সংবাদ সরবরাহ করে।

 

পিপিআই: পিপিআই বা পাকিস্তান প্রেস ইন্টারন্যাশনাল ১৮৫৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এর সদর দপ্তর পাকিস্তানের করাচিতে। ১৯৬৮ সালে পিপিআইর নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস অব পাকিস্তান। ১৯৫৮ সালে সংস্থাটি টেলিপ্রিন্টার সংযোগ নেয়। ১৯৬০ সালে করাচি, রাওয়ালপিন্ডি, লাহোর ও ঢাকার প্রথম সারির সংবাদপত্রগুলো এর গ্রাহক হয়।

 

এএপি:এএপি বা অস্ট্রেলিয়ান বার্তা সংস্হা। ফেয়ার ফ্যাক্স, দ্য হেরাল্ড ও সাপ্তাহিক টাইমস্ মিলে ১৯৩৫ সালে এটি প্রতিষ্ঠা করে। ১৭৫ জন সাংবাদিক ও কর্মচারী নিয়ে পরিচালিত এএপির লন্ডন ও লস অ্যাঞ্জেলেসসহ চারটি ব্যুরো অফিস রয়েছে।

 

পিআর নিউজওয়্যার: এটি একটি বেসরকারি বার্তা সংস্থা। এর সদর দপ্তর নিউইয়র্কের মানহাটানে। বিশ্বের ১৬টি দেশে পিআর নিউজওয়্যারের শাখা কার্যালয় রয়েছে। বর্তমানে ১৩৫টি দেশে পিআর নিউজওয়্যার সংবাদ সুবিধা দিয়ে থাকে। ১৯৫৪ সালে প্রতিষ্ঠিত বার্তা সংস্থাটি অ্যাসোসিয়েট প্রেস, রয়টার্সসহ বড় কয়েকটি সংবাদ সংস্থার সঙ্গে সংবাদ আদান-প্রদান করে থাকে।

 

কিয়োডো নিউজ: এটি জাপানের অলাভজনক বার্তা সংস্থা। ১৯৪৭ সালে প্রতিষ্ঠিত বার্তা সংস্থাটি জাপানের রেডিও-টেলিভিশন ও অধিকাংশ সংবাদপত্রে সংবাদ পরিবেশন করে। এর গ্রাহকসংখ্যা প্রায় ৫০ মিলিয়ন। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে কিয়োডো দৈনিক দুই শতাধিক সংবাদ পাঠিয়ে থাকে। কিয়োডো জাপানি, চীনা, কোরীয় ও ইংরেজি ভাষায় সংবাদ দেয়। বর্তমানে এক হাজার সাংবাদিক ও ফটোগ্রাফার দিয়ে ৭০টি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে সংবাদ আদান-প্রদান করছে এই বার্তা সংস্থা।

সংবাদ বা বার্তা সংস্থাগুলোর বাণিজ্যিক সেবা

সংবাদ সংস্থাগুলো সমিতিরূপে সংবাদ বিক্রির মাধ্যম হিসেবে কাজ করতে পারে। তন্মধ্যে – প্রেস এসোসিয়েশন, থমসন রয়টার্স, এল হেডলাইন নিউজ বা এএইচএন অন্যতম। অন্যান্য সংস্থাগুলো বৃহৎ প্রচার মাধ্যমের প্রতিষ্ঠানগুলোতে সহযোগিতামূলক কাজ করে। কেন্দ্রীয়ভাবে সংবাদগুলোকে একত্রিত করা হয় এবং স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রচারের ব্যবস্থা করা হয়। বৃহৎ সংবাদ সংস্থাগুলো এগুলো সংগ্রহ করতে পারে এবং পুণরায় বিতরণের ব্যবস্থা করে। AP বা এসোসিয়েটেড প্রেস, এএফপি কিংবা এপিএ বা আমেরিকান প্রেস এজেন্সী অন্যতম। বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলো সংবাদকে ঘিরে ব্যবসা করার লক্ষ্যে তাদের তৈরীকৃত সংবাদগুলো অন্যান্য সংবাদপত্রে প্রেরণ করে। বিজনেস ওয়্যার, দ্য হাগিন গ্রুপ, গ্লোবনিউজওয়্যার, মার্কেওয়্যার, পিআর নিউজওয়্যার, সিশনওয়্যার এবং এবিএন নিউজওয়্যার অন্যতম।

সংবাদ বা বার্তা সংস্থার কার্যাবলী

প্রধান সংবাদ সংস্থাগুলো সাধারণতঃ প্রধান ও অতীব জরুরি সংবাদ এবং বৈশিষ্ট্যমূলক মূল প্রবন্ধ তৈরী করে থাকে। পরবর্তী পর্যায়ে এগুলো অন্যান্য সংবাদ সংগঠনগুলোর কাছে প্রেরণ করা হয়। অতঃপর যৎকিঞ্চিৎ পরিবর্তন অথবা কোনরূপ পরিবর্তন ছাড়াই পুণঃব্যবহারের উদ্দেশ্যে ঐ সংবাদ ও প্রবন্ধগুলো অন্যান্য সংবাদ প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রয় করে দেয়া হয়।  উৎপত্তিগতভাবে বা শুরু থেকেই তারা টেলিগ্রাফ ব্যবহার করতো। বর্তমানকালে উন্নত ও উচ্চ প্রযুক্তির যুগে ইন্টারনেটের মাধ্যমে সাবলীল ও সহজভাবে খুব দ্রুতলয়ে সংবাদ প্রেরণ করা হয়। ভোক্তা হিসেবে বিভিন্ন কর্পোরেশন, ব্যক্তি, বিশ্লেষক এবং গোয়েন্দা সংস্থাসহ বিভিন্ন স্তর ও পর্যায়ে গ্রাহকদের কাছে প্রেরণ করা হয়।-in the edit- SA Rahman Kabir

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 sheshalo
Site Customized By NewsTech.Com